ভারতীয় মেয়েদের খেলাধুলায় অবদান


খেলাধুলায় ভারতীয় মেয়েদের অবদান

ভূমিকা :

‘নারীকে আপন ভাগ্য জয় করিবার কেন নাহি দিবে অধিকার’—একথা ভেবে এখন আর ভারতীয় মেয়েদের খেলাধুলায় পিছিয়ে থাকতে হবে না, কিম্বা শুধুমাত্র পুরুষের মুখাপেক্ষি হয়ে বসে থাকতে হবে না, বরং নিজেদের উদ্যোগ ও বলিষ্ঠতায় ভারতীয় রমনীরা অন্যান্য বিভাগের মতো খেলাধুলায় যে সাফল্যের মুখ দেখবে তা নিশ্চিত করে বলা যায়। ঝুলন গােস্বামী থেকে শুরু করে স্বপ্না বর্ষণ অবশ্যই সেই সাফল্যের দিক নির্দেশ।

বিভিন্ন খেলায় কৃতী মেয়েরা :

অ্যাথলিট রূপে যেসব ভারতীয় মহিলারা খ্যাতিলাভ করেছেন তারা হলেন—শুটিং-এ অঞ্জলি ভাগবত (অর্জুন পুরস্কার বিজেতা), লং জাম্পে অঞ্জু ববি জর্জ, এয়ার রাইফেলশুটিং-এ অপূৰ্বি চ্যান্ডেলা, শুটিং-এ আনিশা সৈয়দ, ক্রিকেটে অঞ্জুমা চোপড়া (অর্জুন পুরস্কার বিজেতা), অনুরাধা বিশওয়াল (ট্রাক অ্যান্ড ফিল্ড), ব্যাডমিন্টনে অপর্ণা পােপাট (অর্জুন বিজেতা), ট্রাক অ্যান্ড ফিল্ড-এ আশা আগরওয়াল (অর্জুন বিজেতা), ব্যাডমিন্টনে অশ্বিনী পেনােনপা (অর্জুন বিজেতা), ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডে কবি অ্যালয়সিয়াস, বীনাম্মল (পদ্মশ্রী ও অর্জুন বিজেতা), সাঁতারে বুলা চৌধুরী (অর্জুন বিজেতা), আর্চারি-তে চেকরােভােলু সুয়ােরাে (অর্জুন বিজেতা), মাউন্টেনিয়ারিং- ২-এ ছন্দা গায়েন, জিমন্যাস্ট দীপা কর্মকার (রিও অলিম্পিকে চতুর্থ স্থানাধিকারী), রেসলিং-এ ববিথা কুমারী ফোগাত্, আর্চারি-তে দীপিকা কুমারী, দোলা ব্যানার্জী (অর্জুন বিজেতা), বাস্কেটবল-এ দিব্যা সিং, দাবা-য় দ্রোনাভল্লী হরিকা (অর্জুন বিজেতা), পদ্মশ্রী ও অর্জুন বিজেতা গীতা জুৎশি, ট্রাক অ্যান্ড ফিল্ডে গীতা সিং ও গীতা যযাগিত্, গীতিকা জাখর, স্কোয়াশ-এ জ্যোৎস্না চিনাপ্পা, ট্রাক ও ফিল্ডে হরবন্ত কাউর, হিমা দাস, জ্যোতির্ময়ী শিকদার (পদ্মশ্রী ও অর্জুন বিজেতা), অর্জুন বিজেতা ক্রিকেটার ঝুলন গােস্বামী, ব্যাডমিন্টনে জ্বালা গুট্টা, কোমালজিৎ সন্তু (ট্রাক ও ফিল্ড), বক্সিংয়ে চাহল, দাবায় কোনেবু হাম্পি, ওয়েট লিফটিং-এ মালেশ্বরী (২০০ অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ জয়ী), কুঞ্জরানী দেবী (অর্জুন বিজেতা), ট্রাক ও ফিল্ডে কবিতা কৃয়া পুনিয়া, মাউন্টেনিয়ারিং-এ কে পাতিল, ট্র্যাক ও ফিল্ডে ও হকি-তে মেরি ডিসুজা—যিনি প্রথম এশিয়ান গেমসে রূপাে ও ব্রোঞ্জ এবং দ্বিতীয় এশিয়ান গেমসে সােনা বিজেতা। এছাড়া প্রথম ভারতীয় মহিলা হিসেবে ১৯৫২-তে অলিম্পিকে অংশ- গ্রহণ করেছিলেন। আন্তর্জাতিক হকি-তে ১৯৫৩ (রাশিয়া), ১৯৫৬ (মেলবোের্ন), ১৯৬৪ (জাপান) খেলেছেন। ইনি ২০১৩-তে ধ্যানচাদ পুরস্কারে ভূষিত হন। এছাড়া পদ্মশ্রী ও অর্জুন পুরস্কার প্রাপক মেরি কম মেয়েদের বক্সিং-এ উল্লেখযােগ্য সাফল্য পেয়েছেন। ট্র্যাক ও ফিল্ডে এম. ডি. ভলি সাম্মা (পদ্মশ্রী ও অর্জুন পুরস্কার বিজেতা), পি. মালিয়াক্কাল, মনজিৎ কাউর (অর্জুন বিজেতা), ব্যাডমিন্টনে অর্জুন বিজেতা মধুমিতা বিস্ট, ক্রিকেট মিতালি রাজ (অর্জুন বিজেতা), ট্রাক ও ফিল্ডে অর্জুন বিজেতা নীলম যশবন্ত সিং, টেবল টেনিসে নেহা আগরওয়াল, সাঁতারে নিশা সিলেট (অর্জুন বিজেতা), ব্যাডমিন্টনে পদ্মশ্রী ও অর্জুন বিজেতা পি. ভি.সিন্ধু, টেবল টেনিসে পৌলমী ঘটক (অর্জুন বিজেতা), হকিতে অর্জুন বিজেতা প্রীতম রানী, ম্যারাথনে প্রিয়দর্শিনী, শুটিং-এ রাহি স্বর্ণোবাত (২০১৮ এশিয়াডে সােনা জয়ী), ট্রাক ও ফিল্ডে অর্জুন বিজেতা রীতা আব্রাহাম, ওয়েট লিফটিং-এ রেণুবালা চানু, তামিলনাড়ুর সান্থি সৌন্দরারাজন—যাঁর সংগ্রহে ১১টি আন্তর্জাতিক মেডেল রয়েছে। এছাড়া রয়েছে ব্যাডমিন্টনে পদ্মশ্রী, অর্জুন ও রাজীব গান্ধী খেলরত্ন পুরস্কার বিজেতা সাইনা নেহওয়াল, রেসলিং-এ সাক্ষী। মালিক (২০১৬-র অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ প্রাপক), টেনিসে পদ্মশ্রী ও অর্জুন বিজেতা সানিয়া মির্জা, ক্রিকেটে অর্জুন বিজেতা সন্ধ্যা আগরওয়াল, বক্সিং-এ সরযুবালা দেবী (২০১১-তে AIBA যুব বিশ্ব বক্সিং চ্যাম্পিয়ানশিপ-এ স্বর্ণ প্রাপক), সাঁতারে শিখা ট্যান্ডন (অর্জুন বিজেতা), ট্রাক ও ফিল্ডে সিনি আব্রাহাম (অর্জুন ও পদ্মশ্রী বিজেতা), জে জে শােভা (অর্জুন বিজেতা), সীমা আন্টিল, সােমা বিশ্বাস (অর্জুন বিজেতা), স্টেফি ডিসুজা (অর্জুন বিজেতা), সুনীতা রানী (পদ্মশ্রী ও অর্জুন বিজেতা), দাবায় বিজয়লক্ষ্মী (অর্জুন বিজেতা), ট্রাক ও ফিঙে পি. টি, উষা (পদ্মশ্রী ও অর্জুন বিজেতা), দাবায় তানিয়া সচদেব (অর্জুন বিজেতা), শুটিং-এ তেজ সােনার জৈন এবং এশিয়াডে স্বর্ণজয়ী নীরজ চোপড়া (জ্যাভিলিন গ্লো) ও বাংলার স্বপ্ন বর্মণ (২০১৮ অলিম্পিকে হেপ্টাথেলন-এ স্বর্ণজয়ী) উল্লেখযােগ্য হয়ে রয়েছেন।

উপসংহার :

সমাজ ও দেশের সার্বিক উন্নয়নের জন্য জীবনের সর্বক্ষেত্রে মেয়েদের অংশগ্রহণ ও বিকাশ যে অত্যন্ত জরুরি—এই বােধ আজ সকলের মধ্যে সঞ্চারিত হয়েছে। আর হয়েছে বলেই মেয়েদের শিক্ষার সঙ্গে সঙ্গে খেলাধুলায়ও তাদের অগ্রণী ভূমিকা লক্ষ করা যাচ্ছে। বিশেষ করে বিগত দশ বছরে ভারতে মেয়েরা জীবন বিকাশের অন্যান্য ক্ষেত্রের মতাে খেলাধুলায় তাদের পারদর্শিতা প্রমাণ করতে পেরেছে যা আগামী দিনে মেয়েদের পথ দেখাবে।



error: Content is protected !!