দ্বাদশ শ্রেণী ভূগোল TOP 40 SAQ

জলবায়ুর পরিবর্তন

• অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর : প্রতিটির মান-১
১। জলবায়ু অঞ্চল কাকে বলে?’
উ: ভূপৃষ্ঠের কোনাে বিস্তীর্ণ অঞ্চলের একই প্রকার জলবায়ুর উপাদানযুক্ত (উষ্ণতা, বৃষ্টিপাত, আর্দ্রতা, বায়ুর চাপ, বায়ুর গতিবেগ, মেঘাচ্ছন্নতা, বাষ্পীভবন ইত্যাদি) অঞ্চলগুলিকে জলবায়ু অঞ্চল বলে।
২। কোপেন পৃথিবীর জলবায়ুকে কত ভাগে ভাগ করেছেন ও কী কী?
উ: জার্মান আবহবিদ ভ্লাদিমির কোপেন পৃথিবীর জলবায়ুকে প্রধানত পাঁচটি জলবায়ু অঞ্চলে ভাগ করেন। যথা – ক্রান্তীয় বৃষ্টি জলবায়ু, শুষ্ক জলবায়ু, উষ্ণ নাতিশীতােষ্ণ বৃষ্টি জলবায়ু, শীতল তুষারাবত জলবায়ু এবং মেরু জলবায়ু। প্রধান 5টি জলবায়ু অঞ্চলকে তিনি মােট 13টি উপজলবায়ু অঞ্চলে ভাগ করেছেন।
৩। পৃথিবীর বিনােদন জলবায়ু অঞ্চল কাকে বলে?
উ: মৃদু উষ্ণ গ্রীষ্ম ও মৃদু শীতল শীতকাল এবং সারা বছর রৌদ্রজ্জ্বল মনােরম আবহাওয়ার জন্য বহু পর্যটক ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু অঞ্চলে অবসর যাপনের জন্য যান বলে একে পৃথিবীর বিনােদন জলবায়ু অঞ্চল বলে।
৪। উদ্ভিদের তাপমাত্রার কাম্যস্তর অনুযায়ী উদ্ভিদ মণ্ডলীকে কয়ভাগে ভাগ করা যায় ও কী কী?
উ: উদ্ভিদের তাপমাত্রার কাম্যস্তর অনুযায়ী রণকাইয়ার উদ্ভিদমণ্ডলীকে চার ভাগে ভাগ করেছেন, যথা – i) মেগাথার্মস, সারা বছর অধিক তাপামাত্রায় (> 27°C) জন্মায়। ii) মেসোেথার্মস : সারা বছর মাঝারি তাপমাত্রায় ৭ (22°C) জন্মায়। iii) মাইক্রোথার্মস : কম তাপমাত্রায় (10°C-22°C) জন্মায়। iv) হেকিস্টোথার্মস : অত্যধিক বা কমউষ্ণতায় (<-20°C) জন্মায়।
৫। Monex বা Monsoon Experiment কী?
উ: উপগ্রহ মারফত মৌসুমি বায়ু গবেষণা সংক্রান্ত কর্মসূচি হল Monex.
৬। পৃথিবীর জলবায়ুর পরিবর্তনের একটি অপার্থিব ও একটি পার্থিব কারণের উল্লেখ করাে।
উ: i) সৌর শক্তি পরিমাণের হ্রাসবৃদ্ধি অপার্থিব কারণ। ii) আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত – পার্থিব কারণ।
৭। কিয়ােটো প্রােটোকল কী?
উ: গ্রিনহাউস গ্যাসের পরিমাণ বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণের জন্য 1997 সালে যে চুক্তি সাক্ষরিত হয়েছিল সেটি কিয়ােটো প্রােটোকল নামে পরিচিত।
৮। পৃথিবীর জলবায়ুর পরিবর্তনের একটি প্রমাণের উল্লেখ করাে।
উ: বিভিন্ন স্থানে হিমবাহের অগ্রগমন ও পশ্চাদপসরণ পৃথিবীর জলবায়ুর পরিবর্তনের একটি প্রমাণ।
৯। ক্লাইমােক্রোনােলজি কাকে বলে?
উ: পার্থিব জলবায়ুর অতীত ইতিহাস যে বিজ্ঞানের সাহায্যে জানা যায়, তাকে ক্লাইমােক্রোনােলজি বলে।
১০। মণ্ডার মিনিমাম বা মাউণ্ডার মিনিমাম কী?
উ: সৌরকলঙ্ক চলাকালীন যে সময়ে পৃথিবীতে আগত সৌরশক্তির পরিমাণ অস্বাভাবিক হ্রাস পায়, সেই পর্বকে মণ্ডার বা মাউণ্ডার মিনিমাম বলে। যেমন : 1645 থেকে 1730 সাল।

জীববৈচিত্র্য

• অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর : প্রতিটির মান-১
১। জিনব্যাঙ্ক কাকে বলে?
উ: যেখানে জীবদেহের জিনগত বস্তু সংরক্ষণ করে বিপন্ন জীব প্রজাতির জিনের বৈচিত্র্য রক্ষা করা হয়, তাকে জিনব্যাঙ্ক বলে।
২। ভারতের বৃহত্তম পাখিরালয় কোথায় অবস্থিত?
উ: রাজস্থানের ভরতপুরে
৩। গ্রিন ডেটা বুক কী?উ: বর্তমানে অবিপন্ন বা অবলুপ্তির বিপদ থেকে মুক্ত জীব প্রজাতি সমূহের তালিকা যে বইতে প্রকাশ করা হয় তাকে গ্রিন ডেটা বুক বলে।
৪। ব্ল্যাক ডেটা বুক কী?
উ: যে বইতে ক্ষতিকর বা ধ্বংসাত্মক জীব প্রজাতি সমূহের উল্লেখ করা থাকে তাকে ব্ল্যাক ডেটা বুক বলে।
৫। রেড ডেটা বুক-এ কোন ধরনের জীবের তথ্য লিপিবদ্ধ থাকে?
উ: রেড ডেটা বুক-এ বিলুপ্ত এবং বিলুপ্ত প্রায় জীবের তথ্য লিপিবদ্ধ থাকে।
৬। জিনগত বৈচিত্র্য কী?
উ: কোনাে নির্দিষ্ট জীব প্রজাতির মধ্যে যে জিনগত বিভিন্নতা থাকে তাকে জিনগত বৈচিত্র্য বলে।
৭। বিটা বৈচিত্র্য কী?
উ: একটি ভৌগােলিক অঞ্চলের অন্যান্য সংলগ্ন অঞ্চলের ভিন্ন ভিন্ন বাসস্থানের জীবগােষ্ঠীর মধ্যে যে বৈচিত্র্য দেখা যায় তাকে বিটা বৈচিত্র্য বলে।
৮। আলফা বৈচিত্র্যের দ্বারা কী জানা যায়?
উ: আলফা বৈচিত্র্যের দ্বারা একই গােষ্ঠীভুক্ত জীবসমূহের মধ্যেকার বৈচিত্র্য সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যায়।
৯। গামা বৈচিত্র্য কাকে বলে?
উ: ভিন্ন ভৌগােলিক ক্ষেত্রে একই রকম পরিবেশের প্রজাতির পরিবর্তন বা প্রতিস্থাপনের ফলে যে বৈচিত্র্য তৈরি হয়, তাকে গামা বৈচিত্র্য বলে।
১০। বায়ােডাইভারসিটি হটস্পট বলতে কী বােঝায়?
উ: জীব বৈচিত্র্যের প্রাচুর্যযুক্ত সর্বাধিক বিপদগ্রস্ত বাস্তুতান্ত্রিক অঞ্চলকে বায়ােডাইভারসিটি হটস্পট বলে।
১১। ক্ল্যাড বলতে কী বােঝ?
উ: কোনাে প্রজাতির প্রাণী বা উদ্ভিদ এবং তার সমস্ত বংশধরকে একসঙ্গে ক্ল্যাড বলা হয়।
১২। ইনসিটু সংরক্ষণ কাকে বলে?
উ: কোনাে বিপন্ন, অবলুপ্তপ্রায় বা বিরল জীবকে তার নিজস্ব বাসভূমি অর্থাৎ নিবাস বা বসতি এলাকার মধ্যে সংরক্ষণ করাকে ইনসিটু সংরক্ষণ বলে। অভয়ারণ্য, সংরক্ষিত বনভূমি এলাকায় এধরনের সংরক্ষণ করা হয়।
১৩। এক্সসিটু সংরক্ষণ কাকে বলে?
উ: কোনাে বিরল, অবলুপ্তপ্রায় বিপন্ন জীবের প্রােটোপ্লাজমযুক্ত কোশ, ভ্রুণ, পরাগরেণু, শুক্রানু, ডিম্বানু প্রভৃতিকে চরম শৈত্য অবস্থায় সংরক্ষণ করাকে এক্স-সিটু সংরক্ষণ বলে। এদের প্রাকৃতিক বাসভূমি থেকে দূরে সংরক্ষণ করা হয়।
১৪। সংরক্ষিত জীবমণ্ডল বা বায়ােস্ফিয়ার রিজার্ভ কী?
উ: যেখানে কোনাে বিপন্ন প্রজাতি বা গােষ্ঠীর প্রাণী বা উদ্ভিদকে তাদের জীবনধারা অনুসারে সুদীর্ঘকাল ধরে সুরক্ষিত রাখা না যায়, তাকে বায়ােস্ফিয়ার রিজার্ভ বা সংরক্ষিত জীবমণ্ডল বলে। যেমন – পশ্চিমবঙ্গের সুন্দরবন।
১৫। MAB-এর পুরাে অর্থ কী?
উ: MAB-এর পুরাে কথাটি হল — Man And Biosphere Programme.

ভূ-বৈচিত্র্যসূচক মানচিত্র

অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর : প্রতিটির মান-১
১। সমােন্নতি রেখা কাকে বলে?
উ: সমুদ্র সমতল থেকে একই উচ্চতায় অবস্থিত ভূপৃষ্ঠের স্থানসমূহকে যুক্ত করে মানচিত্রে যে মসৃণ বক্ররেখা আঁকা হয় তাকে সমােন্নতি রেখা বলে।
২। ফর্মলাইন কী?
উ: টোপােমানচিত্রে সমােন্নতিরেখার মাঝে বাদামি রঙের যে ভাঙা ভাঙা রেখা থাকে, তাকে ফর্মলাইন বলে।
৩। ভূপৃষ্ঠের উচ্চতা কয় প্রকার ও কী কী?
উ: তিন প্রকার, যথা :গড় সমুদ্রতলের উচ্চতা, চরম উচ্চতা ও আপেক্ষিক উচ্চতা।
৪। চরম উচ্চতা কাকে বলে?
উ: গড় সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতার ভিত্তিতে কোনাে স্থানের উচ্চতাকে স্থানটির চরম উচ্চতা বলে।
৫। চরম উচ্চতা কয় প্রকার ও কী কী?
উ: চরম উচ্চতা তিন প্রকার। যথা : স্থানিক উচ্চতা, বেঞ্চমার্ক ও ত্রিকোণমিতিক উচ্চতা।
৬। বেঞ্চমার্ক কী?
উ: স্থায়ী কোনাে বস্তুর ওপর খােদাই করে অঙ্কিত, জরিপ কাজ দ্বারা নির্ভুলভাবে মাপা গড় সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে কোনাে স্থানের নিখুঁত উচ্চতাকে বেঞ্চমার্ক বলে। যা মানচিত্রে উচ্চতাসহ BM চিহ্ন দ্বারা দেখানাে হয়।
৭। স্থানিক উচ্চতা বা স্পট হাইট কী?
উ: গড় সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ভূপৃষ্ঠের একটি নির্দিষ্ট স্থানের প্রকৃত উচ্চতাকে স্পট হাইট বলে।
৮। ভারতের কোন সংস্থা টোপােশিট প্রকাশ করে? এর সদর দপ্তর কোথায় অবস্থিত?
উ: Survery of India (ভারতীয় সর্বেক্ষণ বিভাগ)। এর সদর দপ্তর দেরাদুনে অবস্থিত।
৯। টোপােশিটে নিত্যবহ ও অনিত্যবহ নদী কীভাবে চিহ্নিত করা হয়?
উ: নিত্যবহ নদী নীল রঙ দ্বারা, এবং অনিত্যবহ নদী কালাে রঙের নিরবচ্ছিন্ন বা ভাঙা রেখা দ্বারা চিহ্নিত করা হয়।
১০। মানচিত্রে RF কথাটির অর্থ কী?
উ: R. F হল Reserved Forest অর্থাৎ সংরক্ষিত অরণ্য। যে বনভূমির কিছু নির্দিষ্ট এলাকা সরকারি অনুমতি সাপেক্ষে সর্ব সাধারণের ব্যবহারযােগ্য তাকে R.F বলে।
১১। P.F কথাটি দ্বারা টোপােশিটে কী সূচিত হয়?
উ: P.F হল সুরক্ষিত অরণ্য বা Protected Forest যে বনভূমি বাস্ততান্ত্রিক ভারসাম্য রক্ষায় উদ্ভিদ ও প্রাণীদের সংরক্ষণ করা হয় ও বনভূমির কোনাে অংশই সরকারি আইন অনুসারে সর্বসাধারণের ব্যবহার নিষিদ্ধ তাকে P.F বলে।
১২। ভূবৈচিত্র্যসূচক মানচিত্র পাঠের দুটি গুরুত্ব বলো।
উ: i) টোপােম্যাপ পাঠ করে কোনাে নির্দিষ্ট অঞ্চলের ভৌগােলিক অবস্থান, প্রাকৃতিক ও সাংস্কৃতিক বিষয়সমূহের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে ধারণা লাভ করা যায়। ii) এই মানচিত্র বিশ্লেষণ করে আঞ্চলিক আর্থসামাজিক উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা যায়।
১৩। আন্তর্জাতিক মিলিয়ন শিটের RF কত?
উ: আন্তর্জাতিক শ্রেণির টোপােশিটের R.F 1:10,00,000 বা 1 to 1 million তাই এই শ্রেণির শিটকে মিলিয়ন শিট বলে।
১৪। 4° শিট কী?
উ: ভারত ও তার প্রতিবেশি দেশগুলিকে 4° অক্ষাংশ ও 4° দ্রাঘিমা বিস্তারযুক্ত 135টি গ্রিডে বিভক্ত করে যে টোপােশিট তৈরি করা হয় তাকে 4° শিট বলে।
১৫। ডিগ্রি শিট কাকে বলে?
উ: ভারতের যে টোপােশিটে অক্ষাংশ ও দ্রাঘিমাংশ বিস্তার উভয়েই 1 করে থাকে তাকে ডিগ্রি শিক্ষ বলে। এর স্কেল 1/4inch =1mile তাই একে কোয়ার্টার ইঞ্চি শিটও বলা হয়। এই মানচিত্রের R.F. 1:250000

Read moreদ্বাদশ শ্রেণী ভূগোল TOP 40 SAQ

close