গুরু নাটকের কৌতুক রস সম্পর্কে আলােচনা করাে। ( একাদশ শ্রেণি বাংলা)

একাদশ শ্রেণি বাংলা

গুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

• রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর :

১। ‘গুরু’ নাটকের কৌতুক রস সম্পর্কে আলােচনা করাে।

উ: সাহিত্যের অন্যান্য রূপ রীতিতে যেমন, তেমনি নাটকেও রবীন্দ্র প্রতিভা একক, অনন্য। এই অনন্যতা সৃষ্টিতে রূপক সাংকেতিক নাটকগুলির ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। রূপক এবং সাংকেতিক, এই দুইয়ের মধ্যে স্বভাব বৈপরীত্য আছে। ফলত দুটিকে একসঙ্গে গাঁথা অসম্ভব প্রায়। কিন্তু রবীন্দ্র
প্রতিভায় সবই সম্ভব। আরাে আশ্চর্য, এই ধরনের নাটকগুলিতে মূলত একটা সিরিয়াস ভাব থাকে, সেখানে কৌতুকের স্থান প্রায় থাকেই না। কিন্তু ‘গুরু’ নাটক রূপক সাংকেতিক হয়েও কৌতুকের মােড়কে অনবদ্য হয়ে উঠেছে। এখন প্রশ্ন, কৌতুক কী? বা এর উৎস কী? নাটকে এর প্রয়ােগই’বা কেন হয়? আসলে ব্যক্তি বা গােষ্ঠীর আচরণগত অসংগতি, পরিবেশ বা পরিস্থিতির অসামঞ্জস্য, কোনাে মত বা পথকে বিদ্রুপ করার প্রবণতা থেকেই কৌতুক আসে – ‘গুরু’ নাটকেও কৌতুক এসেছে এই পথ ধরেই। নাটকের পটভূমি অচলায়তন নামক এক দেশ। যুগ যুগ ধরে যেখানে শুধু নিয়ম আর নিয়ম। জীবন জিজ্ঞাসা না থাকায় সেখানকার মানুষ জড়তাগ্রস্ত। এই জড়তার রূপটি নাটকে কৌতুকের মেজাজে প্রকাশ পেয়েছে। নাটকের শুরুতেই সুভদ্র বলে, “আমি পাপ করেছি’ — তার এই উচ্চারণে নিয়মের উদ্ভট রূপগুলি স্পষ্ট হয়। উত্তরের জানালা খােলা, একজটা দেবীর জট পাকানাে রাগ, অশুচি হওয়া ইত্যাদি হাস্যরস বয়ে আনে। আরাে সব অদ্ভুত সংস্কারের কথা আছে। যেমন –
০ শনিবারে মহাময়ূরী দেবীর পূজা। ফলে কাঁসার থালায় ইঁদুরের গর্তের মাটি রেখে, পাঁচটি শেয়ালকাঁটার পাতা ও তিনটি মাসকলাই সহযােগে ফু দিলে তিন দিনে সাপের কামড়ে মৃত্যু হবে।
০ পূর্ব ফাল্গুনী নক্ষত্র তিথি। ফলে কাহিনি সরােবরের নৈঋত কোণে ঢোঁড়া সাপের খােলস খুঁজতে হবে। তারপর কালাে ঘােড়ার লেজের সাতগাছি চুল দিয়ে বেঁধে পুড়িয়ে
ধোঁয়া বের করতে হবে। পিতৃ পুরুষের আঘ্রাণজনিত কারণে এতে মহাপুণ্য হবে।
০ শুক্রবারে কারাে গায়ে হাই তুললে ভয়ঙ্কর অমঙ্গল হবে। কেননা এই বিতৃম্ভনের বাতাস যার গায়ে পড়বে, তার আয়ু কমে যাবে।
অর্থাৎ এমন বহু বিচিত্র সংস্কার সত্যিই কৌতুক জাগায়। এরপর প্রায়শ্চিত্ত করার রীতি আরাে উপভােগ্য। যেমন – উত্তরের দেওয়ালে কনুই ঠেকলে বা দাগ কাটলে
সেদিনকার যােগ্য পাত্র সব ফেলা হবে এবং সাত মাসের বাছুর দিয়ে চাটানাে হবে। কিন্তু জানালা খােলা! ওরে বাবা! ওতে তাে মাতৃ হত্যার পাপ হয়। মানে প্রত্যেকটি বিষয়ই
অদ্ভুত এবং কৌতুককর। নাটকের সংলাপও বেশ কৌতুকময়। যেমন : পঞ্চক-এর।
সংলাপ যেন ‘হিউমার’ থেকে ‘উইট’-এ পরিণত হয়েছে। (‘নির্লজ্জ হয়ে আমি একাই মুখ দেখাবাে’ – ইত্যাদি)। চরিত্রের নামগুলিও অদ্ভুত রকমের হাস্যকর অধ্যেতা, উপতিষ্য, স্থবিরপত্তন, মন্থরগুপ্ত ইত্যাদি। সুতরাং বুঝতে
অসুবিধা হয় না যে, ‘গুরু’ নাটকের কৌতুকের আড়ালে তীব্র শ্লেষই অভিব্যক্ত হয়েছে।

1. একাদশ শ্রেণি বাংলা বিষয়

2. একাদশ শ্রেণি “SAQ” বিষয় ইংরেজি

3. দ্বাদশ শ্রেণী ইংরেজি বিষয়

4. রূপনাৱানেৱ কূলে কবিতার বড় প্রশ্ন এবং উত্তর (উচ্চমাধ্যমিক)

5. রাষ্ট্রবিজ্ঞান দ্বাদশ শ্রেণী

6. দ্বাদশ শ্রেণীর ইতিহাস বিষয়

7. দ্বাদশ শ্রেণী ভূগোল বিষয়

8. দ্বাদশ শ্রেণী ইংরেজি বিষয়

9. কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন বিষয় দ্বাদশ শ্রেণি

10. একাদশ শ্রেণি বিষয় ইংরেজি

12. উচ্চমাধ্যমিক”শিক্ষা বিজ্ঞান বিষয় এর (SAQ)” অধ্যায়(1) “শিখন(Learning)”

13. উচ্চমাধ্যমিক”শিক্ষা বিজ্ঞান বিশ্বের বড় প্রশ্ন এবং উত্তর” অধ্যায়(1) “শিখন(Learning)”

14. উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান বিষয়

15. CLASS 12 BENGALI MCQ

https://www.wbanswer.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *